সোহরাওয়ার্দীতে আ.লীগ-বিএনপির পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

সূত্রঃ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশের সিদ্ধান্তের পর একই স্থানে একইদিন সমাবেশের ঘোষণা দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। সরকারের দ্বিতীয় বর্ষ পূর্তিতে ৫ জানুয়ারি রাজধানীতে আরও ১৭টি স্থানে একযোগে সমাবেশ করবে তারা।

Al_BNP_Logo

শনিবার সন্ধ্যায় দলের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোহবান গোলাপের পাঠানো একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ আখ্যায়িত করে দুপুরে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৫ জানুয়ারি সমাবেশ করার ঘোষণা দেয় বিএনপি। এর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি এল।

আওয়ামী লীগ এই দিনটিকে ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে।

২০১৫ সালে এই দিনে কর্মসূচিকে ঘিরে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছিল। এরপর কর্মসূচিতে বাধা পেয়ে খালেদা জিয়া লাগাতার অবরোধ ডাকেন। তিন মাসের ওই কর্মসূচিতে নাশকতায় শতাধিক মানুষ মারা যায়।

আওয়ামী লীগের ঘোষিত ১৮টি স্থানে সমাবেশের মধ্যে মিরপুর-১২ পূরবী সিনেমা হলের সামনে সমাবেশের দায়িত্বে থাকবেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, এস. এম কামাল হোসেন, এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াসউদ্দিন মোল্লাহ।

শ্যামপুর-জুরাইন রেলগেটে দায়িত্বে থাকবেন সাংগঠনিক সম্পদাক আহমদ হোসেন, মমতাজ উদ্দিন মেহেদী, একেএম এনামুল হক শামীম, সানজিদা খানম।
ডেমরা-যাত্রাবাড়ী মাঠের দায়িত্বে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা।

বাড্ডা-রামপুরা পেট্রোল পাম্প এলাকার দায়িত্বে সাবেক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এবি তাজুল ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, সংসদ সদস্য একেএম রহমতউল্লাহ।

ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর রোড এলকার দায়িত্বে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, দেওয়ান শফিউল আরেফীন টুটুল, সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস।

মিরপুর-১ (গোলচত্ত্বর) এর দায়িত্বে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, আখতারুজ্জামান, সংসদ সদস্য আসলামুল হক আসলাম।

লালবাগের দায়িত্বে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ঢাকা মহানগর সভাপতি এম এ আজিজ, সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস।

গুলশানে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, আমিনুল ইসলাম আমিন।

সূত্রাপুরে সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সুজিত রায় নন্দী।

তেজগাঁওয়ে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, সাবেক পরিবেশ মন্ত্রী হাসান মাহমুদ, মো. আব্দুছ ছাত্তার।

সবুজবাগ-খিলগাঁওয়ে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূহ-উল-আলম লেনিন, সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান, সাবেক গণপূর্তমন্ত্রী আবদুল মান্নান খান।

উত্তরায় সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সাহারা খাতুন, সাবেক বিমানমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান; কামরাঙ্গীর চরে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়, ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

মোহাম্মদপুর টাউন হলে উপদেষ্টমণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, ফরিদুন্নাহার লাইলী, পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম।

কাফরুলে সাবেক পররাষ্ট্রপমন্ত্রী দীপু মনি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক।

গুলিস্থান-বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন মেয়র, হাবিবুর রহমান সিরাজ; বনানী-মহাখালীতে ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক, শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

এছাড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দায়িত্বে থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, মো. মিসবাহ্ উদ্দিন সিরাজ, অসীম কুমার উকিল।

Share and Enjoy:
  • Print
  • Digg
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Yahoo! Buzz
  • Twitter
  • Google Buzz
  • LinkedIn

মন্তব্য করুন